ডিপ্লোমা ডাক্তার: মমতার প্রস্তাব নাকচ করলেন বিশেষজ্ঞরা

Bijoy Bd24

৮ দিন আগে সোমবার, জুন ২৪, ২০২৪


#

তিন বছরের ডিপ্লোমা কোর্সে ডাক্তার তৈরির প্রস্তাব দিয়েছিলেন ভারতের পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তবে বিশেষজ্ঞ কমিটি এর সঙ্গে একমত পোষণ করেনি। নাকচ করা হয়েছে সেই প্রস্তাব।

তিন বছরের ডাক্তারি কোর্স চালু করার কথা বলেছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তার বক্তব্য ছিল, স্বাস্থ্যকেন্দ্রে চিকিৎসকের অভাব মেটাতে ডিপ্লোমা ডাক্তারের সার্টিফিকেট দেওয়া হবে।

প্রান্তিক স্তরে চিকিৎসা পরিষেবার উন্নতি করার জন্য এই প্রস্তাব দিয়েছিলেন তিনি। কিন্তু মুখ্যমন্ত্রীর প্রস্তাব কার্যত নাকচ করে দিয়েছে রাজ্য সরকারের গঠন করা বিশেষজ্ঞ কমিটি।

মুখ্যমন্ত্রী মমতাই এই কমিটি তৈরির কথা বলেছিলেন স্বাস্থ্য দপ্তরকে। তিন বছরে ডিপ্লোমা ডাক্তার তৈরি করা যায় কি না, তা খতিয়ে দেখতে বলেছিলেন। সোমবার ১৫ জনের ওই বিশেষজ্ঞ কমিটির বৈঠক বসে। সেখানে প্রত্যেক সদস্য একটি বিষয়ে একমত হয়েছেন বলে জানা গেছে।

তারা সকলেই মনে করেন ডিপ্লোমা ডাক্তারের যে প্রস্তাব মুখ্যমন্ত্রী দিয়েছেন, তা মেনে নেওয়া যায় না। ডিপ্লোমা ডাক্তার শব্দবন্ধটিই ব্যবহার করা যায় না। বরং হেলথ কেয়ার প্রোভাইডার বলে একটি পদ তৈরি করা যেতে পারে।

প্রান্তিক অঞ্চলে চিকিৎসা পরিষেবার উন্নতির জন্য এদের ব্যবহার করা যেতে পারে। বিশেষ প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে এই ব্যক্তিদের। কিন্তু তাদের কখনোই চিকিৎসকের সমতুল্য পদ দেওয়া যাবে না। চিকিৎসক বলাও যাবে না।

এছাড়াও অভিজ্ঞ নার্স, আয়ুষ চিকিৎসক, গ্রামীণ স্বাস্থ্য সহায়করা আছেন। তাদের জন্যও আরও ভালো প্রশিক্ষণের প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে। এই ধরনের আরও নতুন পদ চালু করা যেতে পারে কি না, তা নিয়ে এ দিনের বৈঠকে দীর্ঘ আলোচনা হয়েছে বলে জানা গেছে। বিষয়টি নিয়ে ফের তারা বৈঠকে বসবেন বলে সূত্র জানিয়েছে।

মুখ্যমন্ত্রী ডিপ্লোমা ডাক্তারের বিষয়ে ঘোষণা দেওয়ার পর রাজ্যজুড়ে আলোড়ন উঠেছিল। বিরোধীরা কটাক্ষ করে বলেছিলেন, সিভিক পুলিশ, প্যারাটিচারের মতো আধা-চিকিৎসক তৈরি করতে চাইছেন মুখ্যমন্ত্রী। এর ফলে রাজ্যের স্বাস্থ্য ব্যবস্থা সম্পূর্ণ ভেঙে পড়বে।

তবে চিকিৎসকদের একাংশের বক্তব্য, শুধু রাজ্যে নয়, গোটা দেশেই প্রয়োজনের তুলনায় চিকিৎসকের সংখ্যা কম। গ্রামে গ্রামে যে প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত স্বাস্থ্যকর্মীরা কাজ করেন, তারাই আসলে চিকিৎসা ব্যবস্থা অনেকটা ধরে রেখেছেন। ডিপ্লোমা ডাক্তার নামটি বিভ্রান্তিকর, কিন্তু রাজ্যজুড়ে আরও অনেক স্বাস্থ্যকর্মী যে তৈরি করা দরকার, তা নিয়ে কোনও সন্দেহ নেই।

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  
Link copied